শেখ নাসির উদ্দিন, খুলনা প্রতিনিধি: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ আব্দুল আউয়াল বলেছেন, বর্তমান ক্ষমতাসীনরা মানুষের স্বাধীন ভোটাধিকার হরণের পাশাপাশি জনগণের বাকস্বাধীনতা, রাজনৈতিক স্বাধীনতা, ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণে উদ্যত হয়েছে।

একটি সভ্য ও স্বাধীন জাতি হিসেবে আমরা কিছুতেই তা মেনে নিতে পারি না। কোন অবস্থাতেই মানুষের মৌলিক ও সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নেয়ার এখতিয়ার কারো নেই। এমতাবস্থায় মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কর্মীদের রাজপথে নেমে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীন ভোটাধিকারসহ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বিষয়ে জনগণের ক্ষোভের নিরসন না করে নির্বাচন কমিশন নতুন করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসীল ঘোষণা করায় দেশে নতুন সঙ্কট সৃষ্টি করবে।

তিনি শুক্রবার (২৫ জানুয়ারী) বিকাল ৩টায় জামেয়া রশিদিয়া গোয়ালখালী ময়দানে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর কমিটি আয়োজিত কর্মী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরের সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা মুজ্জাম্মিল হকের সভাপতিত্বে ও নগর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দীন এর পরিচালনায় কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ৷ আব্দুল আউয়াল বলেন, দ্বীন থেকে বিমুখ হওয়ার কারণে দেশে নৈতিকতাহীন কাজ বেড়ে চলছে। খুন ও ধর্ষণ সীমা অতিক্রম করছে। এমতাবস্থায় সকলকে ইসলামের সুমহান আদর্শে ফিরে আসতে হবে। কর্মী সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ন মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান।

আরও বক্তব্য রাখেন নগর সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ গোলাম মোস্তফা সজীব, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবু গালিব, নগর প্রচার সম্পাদক মোঃ তরিকুল ইসলাম কাবির, মোঃ আব্দুর রশিদ, মোঃ রবিউল ইসলাম তুষার, জি এম কিবরিয়া, মুফতী ওয়াক্কাস আলী, মুফতী আব্দুর রহমান, আলহাজ আবু তাহের, গাজী মিজানুর রহমান, মাওলানা মনিরুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা আলহাজ্ব জাহিদুল ইসলাম, মোঃ আবুল কালাম আজাদ, যুবনেত এইচ এম জুনায়েদ মাহমুদ, ছাত্রনেতা মুহাঃ ইসহাক ফরীদি, মুহাঃ সাইফুল ইসলাম, এইচ এম খালিদ সাইফুল্লাহ, আব্দুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। নায়েবে আমীর সন্ধ্যায় প্রজন্ম মুজাহিদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির আলোচনা করেন।

শনিবার বিকাল ৩ টায় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন খুলনা মহানগর ও জেলার উদ্দোগে ছাত্র গণ জমায়েত ও বাদ মাগরিব ইসলামী আন্দোলন নগর কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

Facebook Comments