চরমোনাই থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক: শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি’১৯) বিশ্বের তৃতীয় বৃহৎ গণজমায়েত চরমোনাই মাহফিলে নায়েবে আমীরুল মুজাহিদীন আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম (শায়খে চরমোনাই)-এর ইমামতিতে অনুষ্ঠিত হয়। এই জামায়াতে বাংলাদেশের ইতিহাসে রেকর্ড সংখ্যক মুসুল্লী অংশ গ্রহণ করেন।

২০ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে চরমোনাইর ফাল্গুনের বার্ষিক মাহফিল। শনিবার ২৩ ফেব্রুয়ারি আখেরী মুনাজাতের মাধ্যমে মাহফিলের সমাপ্তি হবে। সারাবিশ্বে মুসলমানদের গণজমায়েতের দিক থেকে তৃতীয় হিসেবে ধরা হয় এই মাহফিলকে। এতো দিন ৪টি মাঠে অনুষ্ঠিত হলেও লোক সমাগম বেশি হওয়ায় এবার আরেকটি মাঠ বৃদ্ধি করে ৫ টি মাঠে এই মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ধারনা করা হচ্ছে, ১৭০ একর আয়তনের সামিয়ানা পেড়িয়েও আশেপাশে প্রায় অর্ধ কোটির মতো লোক এই জামায়াতে শরিক হয়েছে।

জুমার জামায়াতে বরিশালের প্রশাসনিক বিভিন্ন স্তরের ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়।

মুফতি ফয়জুল করীম জুমার প্রদত্ত খুতবায় কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণা দাবি জানান। এছাড়াও আসন্ন ডাকসু নির্বাচনে ইসলাম পন্থীদের অংশগ্রহণে বাম সংগঠনগুলোর বিরোধিতার তীব্র সমালোচনা করে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবী জানান।

Facebook Comments