ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সহযোগী সংগঠন ইসলামী যুব আন্দোলন কোম্পানীগঞ্জ থানা শাখার উদ্যোগে সদস্য প্রশিক্ষণ ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৩ ঘটিকায় বসুরহাট বাজারস্থ নির্ঝর রেস্টুরেন্ট অডিটোরিয়ামে এম.এস আরমান এর সভাপতিত্বে ও মু. রহিম উদ্দীনের সঞ্চালনায় এ সদস্য প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মুফ্তি আব্দুর রহমান গিলমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলন নোয়াখালী জেলা শাখার সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক মু. মুদ্দাসসির হোসাইন।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমানে প্রত্যেকটি সেক্টরে টেন্ডারবাজী, চাঁদাবাজি, লুটপাট, খুন ও ধর্ষণ সহ অবৈধ সব কাজগুলো যুবকদের মাধ্যমেই পরিচালিত ও সংঘটিত হচ্ছে, কিন্তু এর সঠিক বিচারের কোনো ব্যবস্থা হচ্ছে না। দেশের যুব সমাজ আজ মাদকাসক্ত ও নেশাগ্রস্থ হয়ে পড়ছে দিনদিন। দেশের যুব সমাজ আজ ইয়াবার ছোঁয়ায় সুন্দর ভবিষ্যৎকে নিজ হাতে ধংষের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। অথচ আমারা লক্ষ করলে দেখতে পাই, এদেশের যুব সমাজ অতীতে মিথ্যাকে অপসারিত করে সত্যকে বিজয়ের লক্ষে অনেক ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছে, সমাজে বিপ্লবার্তক পরিবর্তনে যুব সমাজের রয়েছে গৌরবজনক অবদান, তাই যুব সমাজকে প্রতিহিংসার অন্ধকার জগত থেকে মুক্ত করে আলোর পথে ফিরিয়ে আনতে ইসলামী যুব আন্দোলনের দায়ীত্বশীলদের ঝাপিয়ে পড়তে হবে গ্রামে-গঞ্জে মহল্লায় মহল্লায়।

তিনি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশকে রাজনৈতিক অঙ্গণে জোট-মহাজোটের বাহিরে তৃতীয় শক্তি হিসেবে উল্লেখ করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনিত প্রার্থী মাও: মু. আবু নাছেরকে আগামী নির্বাচনে হাতপাখা মার্কায় ভোট দেয়ার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথি তার বক্তব্যের একপর্যায়ে বলেন, যুব সমাজের প্রয়োজনীয়তাকে অনুধাবন করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সহযোগী সংগঠন হিসেবে

আমাদের মুহতারাম আমীর হযরত মাও: মুফ্তি সৈয়দ মু. রেজাউল কারীম (পীর সাহেব চরমোনাই) গত ২৮ শে জুলাই ২০১৬ ইং রোজ বৃহস্পতিবার ইসলামী যুব আন্দোলন নামে যুবকদের জন্য এই সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। আজ বাংলাদেশের হাজারো যুবক ইসলামী যুব আন্দোলনের ব্যানারে এসে আলোর পথ খুঁজে পেয়েছে। সুতরাং সকল দায়িত্বশীলকে মাঠে ময়দানে যুব আন্দোলনের দাওয়াত নিয়ে ঝাপিয়ে পরতে সকলের প্রতি উদাত্ব আহবান জানান।

ইফতার মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনা করেন ইসলামী আন্দোলন নোয়াখালী-৫ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী মাও: মু. আবু নাছের, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা সভাপতি এইচ.এম শাহিদুল ইসলাম, যুবনেতা মু. রহিম উদ্দীন, মু. নূরুল ইসলাম, মু. জহির উল্যাহ, শ্রমিক নেতা মু. জাকির হোসাইন মাসুদ, ছাত্রনেতা হাফেজ আব্দুল লতিফ সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

Facebook Comments