islami Andolan BD

সবদলের অংশগ্রহণের জন্য নতুন কোনো উদ্যোগ নেয়া হবে না বলে সিইসির দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ ও যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন। নেতৃদ্বয় বলেন, সিইসির বক্তব্য ও আচরণে মনে হচ্ছে না তিনি অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চান। সিইসির কাজই হলো সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য যা যা করা প্রয়োজন তাই করবে। কিন্তু বর্তমান সিইসির আচরণে মনে হয় তিনি সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ণ করতে চান।

তারা বলেন, তাহলে কী কমিশন একতরফা নির্বাচনের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে? যদি তাই হয় নির্বাচন নির্বাচনের তো দরকার নেই। ৫ জানুয়ারীর মতো নির্বাচন দিয়ে দেশের সম্পদ নষ্ট করার কোনো মানে হয় না।

নেতৃদ্বয় বলেন, দেশের মানুষ শান্তি ও মুক্তি চায়। ঈমান ও আমলের নিরাপত্তা চায়। বাঁচার মতো বাঁচতে চায়। আর বর্তমান শাসনব্যবস্থা মানুষের চাহিদা পূরণে ও শান্তি দিতে ব্যর্থ হয়েছে। ‘মানবতার স্থায়ী শান্তি ও সার্বিক মুক্তির লক্ষ্যে মানুষ ঈমান ও ইসলাম নিয়ে বাঁচতে চায়। নিরাপদে বসবাস, ব্যবসা-বাণিজ্য, চলাফেরা করতে চায়। হয়রানি থেকে মুক্ত থাকতে চায়। সন্তানরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ চায়। ন্যায়বিচার ও সুশাসন চায়। অবাধ-সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচন চায়। ইজ্জত-আব্রুর নিরাপত্তা চায়। চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ ও দখলদারিত্বমুক্ত বাংলাদেশ চায়। আর তা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে অনেকাংশে নিরসন সম্ভব।

 

Facebook Comments