| |

সিরিয়ায় গণহত্যা বন্ধে জাতিসংঘ মহাসচিব বরাবর ইশা ছাত্র আন্দোলন-এর স্মারকলিপি পেশ

প্রকাশিতঃ ৭:২৬ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৫, ২০১৮

আইএবি নিউজ : সিরিয়ায় বাশার আল-আসাদ ও তার মিত্ররা রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগের মাধ্যমে সে দেশের নিষ্পাপ শিশু, নারী ও জনগণের উপর ইতিহাসের নির্মম গণহত্যা চালাচ্ছে। সেখানে গত কয়েক বছরের যুদ্ধে অর্ধেকেরও বেশি নাগরিক উদ্বাস্তু হয়ে পড়েছে। ত্রাণের বিনিময়ে নারীদের ইজ্জত কেড়ে নেয়ার মত ঘটনা ঘটছে বলে সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। বিশ্বে শান্তি ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ জাতিসংঘকে বিরাজমান সহিংসতা বন্ধ করতে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

আজ ৫ মার্চ’১৮ সোমবার, বেলা ১১টায় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর উদ্যোগে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইট চত্বরে “সিরিয়ায় মুসলিম নিষ্পাপ শিশু-নারী ও জনগণের ওপর বাশার আল-আসাদ সরকার কর্তৃক বর্বরোচিত অমানবিক গণহত্যার প্রতিবাদে” ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয় বরাবর “স্মারকলিপি পেশ” পূর্ব জমায়েতে সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শেখ ফজলুল করীম মারুফ উপর্যুক্ত কথাগুলো বলেন।

কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুল করীম মারুফ স্বাক্ষরিত ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয়ের মাধ্যমে প্রেরণকৃত স্বারকলিপিতে বিবাদমান পক্ষগুলোকে নিয়ে কুটনৈতিক সমঝোতা স্থাপন, সিরিয়ায় দ্রুত জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশন প্রেরণ, পর্যাপ্ত ত্রাণ প্রেরণ ও ত্রাণ তৎপরতায় পর্যবেক্ষণ জোরদার, উদ্বাস্তুদের নিরাপদে স্বদেশে প্রত্যাবর্তন, আসাদ ও বিদ্রোহীদের মাঝে ক্ষমতার ভাগাভাগির মাধ্যমে স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনার পদক্ষেপ গ্রহণ, রাশিয়া আমেরিকা, ইসরাইল ও তুরস্ককে সিরিয়ার যুদ্ধক্ষেত্র হতে নিবৃতকরণ এবং মানবাধিকার ও যুদ্ধাপরাধের নিরপেক্ষ আন্তর্জাতিক তদন্ত দল গঠন করতে জাতিসংঘ মহাসচিবের কাছে লিখিত আকারে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপি পেশ পূর্ব জমায়েতে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শেখ মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.এম কাওছার আহমাদ, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহ প্রমুখ।

জমায়েত শেষে দুপুর ২টায় কেন্দ্রীয় সভাপতির নেতৃত্বে ৩ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয়ে স্মারকলিপি জমা দেন।

 

0Shares