| |

দেশে প্রতিহিংসার রাজনীতি চলছে : অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমদ

প্রকাশিতঃ ১০:০১ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

ডেস্ক রিপোর্ট: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, দেশে প্রতিহিংসার রাজনীতি চলছে। হিংসা-বিদ্বেষের রাজনীতি পরিহার করে সকলকে ইসলামে ফিরে আসতে হবে। প্রতিহিংসার রাজনীতি দিন দিন অশান্তি সৃষ্টি করে। পক্ষান্তরে ইসলামী রাজনীতি সবসময় শান্তির পক্ষে। ইসলামী নেতৃত্বকে কখনো অশান্তি গ্রাস করতে পারে না। ইসলাম সকল ধর্ম, গোষ্ঠী, জাতি দলমত নির্বিশেষে মানুষের কল্যাণে নিবেদিত। ইসলামী আন্দোলন রাজনীতি করে ইবাদত হিসেবে। এখানে নিজের স্বার্থের চেয়ে মানবতার কল্যাণ সর্বাগ্রে। তিনি বলেন, দুর্নীতিবাজ, চরিত্রহীন লুটেরা নেতানেত্রীদের আনুগত্য পরিহার করে ফিরে আসতে হবে আল্লাহর রাসূল সা.এর তরিকায়; আপোসহীন আদর্শিক ধারায়।

আজ বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দাওয়াতী মাস পর্যালোচনা এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, প্রকৌশলী আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা মকবুল হোসাইন, আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন।

তিনি বলেন, প্রচলিত শাসন ব্যবস্থার অসারতা এবং ইসলামী শাসনের অনিবার্যতা তুলে ধরে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর দাওয়াত সারাদেশের প্রতিটি ঘরে প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে এ কর্মসুচি গ্রহণ করা হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ইসলামের সুমহান আদর্শকে বাদ দিয়ে সমাজ ও রাষ্ট্র জীবনে পুঁজিবাদী গণতন্ত্র, নাস্তিক্যবাদী সমাজতন্ত্র এবং অসার ধর্মনিরপেক্ষতাবাদী আদর্শ গ্রহণ করায় সর্বত্র অশান্তিও আগুন জ্বলছে। এ সব মতাদর্শ দ্বারা মানবতার কল্যাণ সম্ভব নয়। ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন আদর্শ। ইসলাম ছাড়া মানবতার শান্তি ও মুক্তি সম্ভব নয়। দেশের সর্বস্তরের জনতাকে ইসলামের সুমহান আদর্শে ফিরে আসার আহ্বান জানান।
এদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কুমিল্লা বাঙ্গরা বাজার থানার ৭নং পশ্চিম বাঙ্গরা ইউনিয়ন শাখার এক দাওয়াতী সভা গতকাল সকালে আলহাজ্ব মনির হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে স্থানীয় একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা-৩ নির্বাচনী এলাকার দলীয় প্রার্থী মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রনেতা শরীফুল ইসলাম ও হাফেজ ফয়সাল আহমদ প্রমুখ।

0Shares