| |

কমিউনিষ্ট পার্টিসহ বিভিন্ন সংগঠনের শতাধিক নেতাকর্মীর ইসলামী আন্দোলনে যোগদান

প্রকাশিতঃ ১১:৪৮ অপরাহ্ণ | মার্চ ২০, ২০১৮

ডেস্ক রিপোর্ট : শোষিত, বঞ্চিত ও ভাগ্যাহত মজলুম মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাতে দেশে ইসলামী শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (শায়েখ চরমোনাই)।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে যারাই দেশ পরিচালনা করেছে তারাই নিজেদের আখের গুছিয়েছে। দেশবাসীর কথা বেমালুম ভুলে রাতারাতি আগুল ফুলে কলাগাছ নয় বটগাছে পরিণত হয়েছে। এরা লুটেরা, দুর্নীতিবাজ। দুর্নীতির করালগ্রাসে জাতি জর্জরিত। দুর্নীতিমুক্ত ও ইনসাফপূর্ণ সমাজ গঠন ছাড়া মজলুম মানুষের মুক্তি সম্ভব নয়।

সোমবার (১৯ মার্চ’১৮) বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নড়াইল জেলা শাখার উদ্যোগে পুরাতন বাস টার্মিনালে আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জেলা সভাপতি মাওলানা খায়রুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান।

অন্যান্যের বক্তব্য রাখেন জেলা সহ-সভাপতি আলহাজ্ব্ মাওলানা ইমরান হুসাইন, মাওলানা শামসুল হক, সেক্রেটারী ডা. নাছির উদ্দিন, মাওলানা আব্দুল হান্নান প্রমুখ। জনসভার এক পর্যায়ে জেলা কমিউনিষ্ট পার্টি নেতা ডা. নূর জালাল-এর নেতৃত্বে শতাধিক নেতাকর্মী শায়েখ চরমোনাই’র গতিশীল নেতৃত্ব ও ইসলামী আদর্শের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে তাঁর হাতে ফুলের তোড়া তুলে দিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এ যোগদান করেন। শায়েখ চরমোনাই যোগদানকারীদের বরণ করে নিয়ে বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দেশের স্থায়ী শান্তি ও মানবতার মুক্তির জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও কায়েমী স্বার্থবাদীদের মূলোৎপাটন করে একটি ইনসাফপূর্ন সমাজ প্রবর্তনে নিরলসভাবে কাজ করছে। এ সংগঠনে সর্বস্তরের লোকজন এগিয়ে এলে আমরা আমাদের লক্ষ্যপানে পৌঁছতে পারব। তিনি যোগদানকারীদের জন্য আল্লাহর কাছে মদদ প্রার্থণা করেন। তিনি সকলকে ইসলামের সুমহান পতাকাতলে ফিরে আসার আহ্বান জানান। শায়েখ চরমোনাই আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হাতপাখার পক্ষে ভোট বিপ্লব ঘটাতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

5697Shares