| |

কিশোরগঞ্জে ইশা ছাত্র আন্দোলনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিতঃ ১২:১২ অপরাহ্ণ | জুন ০৭, ২০১৮

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: বুধবার (৬ জুন) ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে ইসলামী সমাজ বিনির্মাণে মাহে রমজানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল রথখলা ধানসিঁড়ি রেস্টুরেন্ট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। ইশা ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি মোঃ জোবায়ের আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন কবীরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি, ছাত্রনেতা শেখ মোঃ সাইফুল ইসলাম।

 

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমানে ছাত্র সমাজকেই জাতীর নেতৃত্ব দিতে হবে। তাই বর্তমান ছাত্র সমাজকে দক্ষ, কর্মমূখী ও নৈতিকতা সম্পন্ন হতে হবে। ইশা ছাত্র আন্দোলন আর দশটি ছাত্র সংগঠনের ন্যায় প্রচলিত রাজনীতি করেনা। এরা ব্যক্তি জীবন গঠন ও সমৃদ্ধ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

তিনি আরো বলেন বলেন, আদর্শ সমাজ গঠনে ইশা ছাত্র আন্দোলনের বিকল্প নেই। তাই ছাত্র সমাজকে চরিত্রবান ও আদরশ নাগরিক হওয়ার জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসেন, সেক্রেটারি মাও.মহিউদ্দিন আজমী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাও.শফিকুল ইসলাম ফারুকী উপস্থিত ছিলেন।

হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসাইন তালুকদার তার বক্তব্যে বলেন ছাত্র সমাজ জতির কান্ডারী, আর বাংলাদেশে ছাত্র সমাজ আজ দিশেহারা, এই জাতির হাল ধরলে যোগ্য নেতৃত্ব তৈরী করতে হবে ছাত্র সমাজের মধ্যে। অন্যথায় জাতির অধপতন কেউ রুখতে পারবে না।

সভাপতির বক্তব্যে জোবায়ের আহমদ বলেন, সংযমের মাসে সংগ্রামের শপথে বলিয়ান হয়ে দেশ গঠনে ছাত্র সমাজকে ভুমিকা রাখতে হবে । মেধাবী ছাত্ররা যদি পড়া-লেখার পাশা-পাশি দেশ পরিচালনার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে তবে দেশ ও জাতি একটি দক্ষ নেতৃত্ব পাবে।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলনের সহকারি দফতর সম্পাদক সাংবাদিক মুহা.আশরাফ আলী সোহান, সহ.অর্থ সম্পাদক মুহা.রেদওয়ান আহমাদ, সমাজ কল্যান সম্পাদক মুহা.রুকন উদ্দীন, সাবেক ছাত্র নেতা মুহা.মাজহারুল ইসলাম, ইসলমী যুব আন্দোলন কিশোরগঞ্জের সভাপতি মুফতি বরকত হোসাইন, জেলা ছাত্র আন্দোলনের সহ.সভাপতি মুহা.ইমদাদুল্লাহ মাহবুব, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহা.আরিফুল ইসলাম, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহা.আব্দুল্লাহ বিন রশিদ, অর্থ সম্পাদক আবরারুল হক্বসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।

 

62Shares