| |

শত প্রতিকূলতা ও ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে সফল হলো হাটহাজারীর আলোচিত মাহফিল

প্রকাশিতঃ ৩:০৯ অপরাহ্ণ | মে ১২, ২০১৮

এম ওমর ফারুক আজাদঃ শত প্রতিকূলতা ও ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে সফল হলো চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে পীর সাহেব চরমোনাই’র মাহফিল। বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি হাটহাজারী উপজেলার ব্যবস্থাপনায় ও সর্বস্তরের তৌহিদী জনতার উদ্যোগে গতকাল মাহফিলটি হাটহাজারীস্থ মির্জাপুর বুড়িপুকুর ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রচন্ড শিলাবৃষ্টি, বাতাস আর প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করে মাহফিলে অংশ নেন হাজারো মুসল্লি। বৃষ্টিতে ভিজেও মাহফিল শুনেছেন আগত মুসল্লিরা। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আমীরুল মুজাহিদীন আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই)।

প্রধান অতিথির বয়ানে তিনি বলেন, আল্লাহ রাব্বুল আলামীন মানুষকে নিছক নামায, রোযা, হজ্ব-যাকাত আদায় করার জন্য সৃষ্টি করেন নাই বরং ইবাদাতের জন্য সৃষ্টি করেছেন। জীবনের সর্বক্ষেত্রে আল্লাহ যেভাবে বিধানাবলী দিয়েছেন সেভাবে সব কাজ সম্পন্ন করার নামই ইবাদাত। আর তাই নামায, রোযা ইত্যাদি যখনি আল্লাহর বিধান ও রাসুল সাঃ এর তরীকা অনুযায়ী হবে তখন তা ইবাদাত হিসেবে গণ্য হবে, অন্যথা এসবের কোন মূল্য নাই। তিনি আরো বলেন, কবরের তিনটি প্রশ্নের মধ্যে একবারও জিজ্ঞেস করা হবেনা তুমি চরমোনাই’র মুরিদ নাকি অন্য কোন দলের মানুষ। কবরে দলাদলি চলবেনা। প্রত্যেককে নিজের আমল দিয়ে পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

তাই কোন পীরের ক্ষমতা নেই তার মুরিদকে জান্নাতে নিয়ে যাওয়ার।

হক্কানি পীরদের কাজ রাসুল সাঃ এর নির্দেশিত পথ মানুষদের দেখিয়ে দেয়া। তাদের কাজ ওই অনুযায়ী আমল করা, গন্তব্যে পৌছানোর মালিক আল্লাহ।

মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে বয়ান পেশ করেন নানুপুর জামিয়া ওবায়দিয়ার মুহাদ্দিস মুফতি কুতুব উদ্দীন, জামিয়া নাজিরহাট বড় মাদরসার সহকারী পরিচালক মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমী, মুফতি শিহাব উদ্দীন, মাওলানা মিজানুর রহমান নোমানী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, প্রশাসনিক অনুমতির ভিত্তিতে গতকালের মাহফিলটি হওয়ার কথা ছিলো উপজেলার সরকারহাট বাজারস্থ গণি কনিউনিটি সেন্টারে। কিন্তু একই দিনে বেরেলভীপন্থিরা পাল্টা আরেকটি মাহফিলের আহবান করায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার আশঙ্কায় প্রশাসন উভয়পক্ষকে আলাদা আলাদা স্থানে মাহফিল আয়োজন করার স্থান নির্ধারণ করে দেয়। তিনটি শর্তের ভিত্তিতে বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি প্রশাসনের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়।

1952Shares