| |

স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াতকে জনগণ প্রত্যাখান করবে : আমীর, ইসলামী আন্দোলন

প্রকাশিতঃ ১২:৩৬ অপরাহ্ণ | মার্চ ২৬, ২০১৮

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মো. রেজাউল করীম (শায়েখ চরমোনাই) বলেছেন, এরই মধ্যে প্রমাণিত হয়েছে জামায়াত ইসলামী মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তির দল। পৃথিবীর ইতিহাসে স্বাধীন দেশে স্বাধীনতা বিরোধীদের বিজয়ে কোনো নজির নেই।

তাই জামায়াত ইসলামীও এদেশে কখনও ক্ষমতায় আসতে পারবে না। তিনি আরও বলেন, আগামী নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ৩শ’ আসনেই প্রার্থী দেবে। ইতোমধ্যে সকল আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। আর এই প্রার্থীদের বিজয়ী করতে ওলামা-মাশায়েখদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। রোববার দুপুরে বাগেরহাট শহরের খারদ্বার মাদ্রাসায় ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। এদেশে ইসলামের প্রচারে আলেমদের ভূমিকা উল্লেখ করতে গিয়ে তিনি বলেন, যখনই ইসলামের উপর কোনো কালো ছায়া নেমে আসে তখনই আলেমরা তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়।

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরেও বাংলাদেশে ইসলামী দল গুলোর তথা মুসলমানদের কোনো অবস্থান নেই। তিনি আরও বলেন, বিগত দিনে ইসলামী দলগুলো অনইসলামিক দলগুলোর সঙ্গে মিশে ক্ষমতায় গেলেও সংসদে বসে মদের লাইসেন্সসহ বিভিন্ন ইসলাম বিরোধী আইন পাস করেছেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বর্তমানে এদেশের তৃতীয় বৃহত্তম রাজনৈতিক দল।

ইসলামী আন্দোলনের বাগেরহাট জেলা শাখার আয়োজনে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর হাফেজ মাওলানা মো. আব্দুল আউয়াল, ফজলুল উলুম মাদ্রাসার মুহাতামিম মাওলানা মো. আব্দুল মজিদ, ছারছিনার ছোট পীর সাহেব আরিফ বিল্লাহ সিদ্দিকী, ইসলামী আন্দোলনের খুলনা মহানগরীর সভাপতি মাওলানা মো. মুজ্জাম্মিল হক, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি জিএম রুহুল আমিন, যুব আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা মো. নেছার উদ্দিন, ইসলামী আইনজীবী সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত জাতীয় নির্বাচনে বাগেরহাট-২ আসনের প্রার্থী অ্যাডভোকেট আতিয়ার রহমান।

1038Shares