| |

বরিশাল-৬ আসনে হাতপাখার প্রার্থী মাওলানা নূরুল ইসলাম আল-আমীন চৌধুরী

প্রকাশিতঃ ৮:১৭ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮

বরিশাল প্রতিনিধি : তিনি বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী চৌধুরী বংশের কৃতি সন্তান। বাকেরগঞ্জের আলো-মাটি-প্রকৃতিতেই তার বেড়ে ওঠা। নিজ এলাকায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ঐতিহ্যবাহী চরমোনাই আহছানাবাদ রশিদিয়া কামিল মাদরাসা থেকে দাখিল, আলিম এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ফাযিল ও কামিলে প্রথম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হন। মাওলানা নূরুল ইসলাম আল-আমীন আপাদমস্তক একজন রাজনীতিবিদ।

তিনি ইসলাম, দেশ ও মানবতার সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করার মানসে ১৯৯৭ সালে হযরত পীর সাহেব চরমোনাই রহ. প্রতিষ্ঠিত সংগঠন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এ যোগ দেন। এরপর তৃণমূল থেকে দায়িত্ব পালন করে পর্যায়ক্রমে ২০১৪ সালে কেন্দ্রীয় সেক্রেটারি জেনারেল এবং ২০১৫ ও ২০১৬ সালে দুই সেশন কেন্দ্রীয় সভাপতির দায়িত্ব দক্ষতার সাথে পালন করেন। তিনি কেন্দ্রীয় সভাপতি থাকাকালীন আমি বরিশাল জেলায় দায়িত্ব পালন করি।

খুব কাছ থেকে তার দৃঢ়তা, সময়ানুবর্তীতা, সাহসিকতা, পরিশ্রম ও ত্যাগের দৃষ্টান্ত অবলোকন করে তার নেতৃত্বের যোগ্যতা উপলব্ধি করেছি। তিনি ২০১৬ সালে বিতর্কিত শিক্ষানীতি ও সিলেবাস সংশোধনের দাবিতে সর্বদলীয় ইসলামী ছাত্র ঐক্য গড়ে তোলেন এবং বলিষ্ঠতার সাথে মুখপাত্রের দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি ইসলামী যুব আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। মাওলানা নূরুল ইসলাম আল-আমীন ছোটবেলা থেকেই একজন জনহিতৈষী সমাজসেবক ছিলেন। সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য কিছু করার অদম্য ইচ্ছা থেকে তিনি বিভিন্ন সমাজকল্যাণমূলক কাজের উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

তিনি হাওরের ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক ও উত্তরাঞ্চলের বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের সাহায্যার্থে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। মিয়ানমারের সামরিক জান্তা কর্তৃক ইতিহাসের জঘন্যতম নৃসংশতার শিকার ভিটেহারা মজলুম রোহিঙ্গা মুসলিম মা-বোনদের সাহায্যার্থে ছুটে যান। তিনি বাকেরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার ও ব্যবসায়ীদের পাশে আর্থিক সহায়তা নিয়ে দাঁড়ান। এছাড়াও মাওলানা নূরুল ইসলাম আল-আমীন মানবিক দায়িত্ববোধ থেকে ঘূর্ণিঝড়, নদীভাঙ্গনসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ান। তিনি সামাজিক কাজে আরো বৃহৎ পরিসরে অংশগ্রহণের জন্য বন্ধন সামাজিক সংগঠন গড়ে তোলেন। কর্মজীবনে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা। বর্তমানে তিনি আল-বাক্কা করপোরেশন লিমিটেড-এর ডাইরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এমন একজন আলেমে দ্বীন, দক্ষ সংগঠক, বিচক্ষণ রাজনীতিবিদ ও জনহিতৈষী সমাজসেবক ও উদ্যোক্তাকে (বরিশাল-৬) বাকেরগঞ্জের গণমানুষের সেবা করার জন্য হযরত পীর সাহেব চরমোনাই আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছেন।

তিনি বাকেরগঞ্জের গণমানুষের প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়ে সন্ত্রাস, মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজগঠনে সংকল্পবদ্ধ। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে গণমানুষের ভাগ্যোন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তিনি দারিদ্রতা দূরীকরণ, শিক্ষার প্রসার ও বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা এবং অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে একটি আধুনিক ও উন্নত বাকেরগঞ্জের স্বপ্ন দেখেন। তিনি তাঁর স্বপ্নপূরণে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পীর সাহেব এর মনোনীত প্রার্থী হিসেবে দল-মত, ধর্ম-বর্ণ ও শ্রেণি-পেশা নির্বিশেষে নারী-পুরুষ সর্বস্তরের মানুষের ভালোবাসা, দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশী।

1329Shares