| |

বিসিসি নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলনের হেভিওয়েট প্রার্থী; বদলে দিতে পারে অনেক হিসাব-নিকাশ

প্রকাশিতঃ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ | জুন ২৯, ২০১৮

ইলিয়াস হাসান : বিভিন্ন পত্র-পত্রিকার নিউজে দেখলাম বরিশালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থীর শক্ত অবস্থানের কারণে বিএনপি ও আওয়ামী পন্থীদের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে। কেননা তারা এতদিন জমিদারী এস্টেট এর স্টাইলে রাজনীতি করেছে, এক জনের পরিবর্তে অন্য জন, সেই দিন শেষ। দেশের মানুষ এখন বিকল্প চিন্তা করতে শিখেছে; আর কেনইবা তা করবে না? এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার প্রকৃত স্বাদ যে দেশের মানুষ এখনো পায়নি।

বরিশালের ভোটের হিসাব ইসলামের পক্ষে জাতীয় রাজনীতিতে বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে ইনশাআল্লাহ। ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে বরিশাল সদর আসনে ইসলামী আন্দোলন ভোট পেয়েছে প্রায় ৩০ হাজার, তাতে সিটির ছিল কমপক্ষে ১০ হাজার। আর বিভিন্ন নির্বাচনের পরিসংখ্যানে দেখা যায় ইসলামী আন্দোলনের ভোট বেড়েছে ২০০৮ এর অপেক্ষায় ৫ গুন।

এ ছাড়াও বরিশাল সদর আসনে জাতীয় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বাংলাদেশের রাজনীতিতে অন্যতম জনপ্রিয় ব্যক্তি মুফতি ফয়জুল করীম দাঃ বাঃ। তিনি গত দশ বছরে সেই প্রস্তুতিও গ্রহণ করেছেন এবং প্রতিটি ওয়ার্ড ও পরা-মহল্লায় তিনি মজবুত সংগঠন গড়তে সক্ষম হয়েছেন।

গাজীপুরে যদি ২০০৮ এর তুলনায় ৫ গুন ভোট বৃদ্ধি পায়, তবে বরিশালের বিষয় বলার অপেক্ষা রাখে না। বরিশাল সিটিতে মোট ভোটার ২,৪১,৯৫৯ জন, তার মধ্যে যদি ৭০% ভোটও কাস্ট হয় তাতে ভোটের সংখ্যা দাড়ায় ১,৭০,০০০ আর বরিশাল সিটিতে যে ত্রিমুখী লড়াই হবে একথা ধ্রুব সত্য তাতে ৬০-৬৫ হাজার ভোটে মেয়র নির্বাচিত হবে।

২০০৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে যেখানে ১০ হাজারের মত মানুষের সমর্থন ইসলামের পক্ষে এসেছে, সেখানে ইসলামী আন্দোলনের বতর্মান অবস্থা সহজেই বুঝা যায়, আর সারা দেশের পরিসংখ্যান বলছে ৫ গুন ভোট বৃদ্ধি পেয়েছে।

স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রার্থী একটা বড় ফ্যাক্ট, সেক্ষেত্রে হাতপাখার প্রার্থী হাফেজ মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহবুব সাহেবের ব্যাক্তিত্ব সম্পর্কে নতুন করে তেমন কিছু বলার নেই, যা বরিশালের মানুষ ভাল করেই জানে। আমার তাকে খুব কাছ থেকেই দেখার সৌভাগ্য হয়েছে এবং ৫টি বছর তাকে খুব করেই জেনেছি, অনেক বড় মাপের মানুষ তিনি। আল্লাহ তাকে ওমর দারাজদিল দান করেছেন। হযরত ওমরের ইতিহাস পড়েছি, আর কাছ থেকে একজন ওবায়দুর রহমান মাহবুব সাহেবকে দেখেছি, তিনি আমানতগঞ্জ এলাকার মুকুটবিহীন সম্রাট, তার কাছে মানুষ শুধু ভক্তি করে পানি পড়া নিতেই আসে না, অত্র এলাকার গুরুত্বপূর্ণ বিচার সালিশ করেন তিনি।

যাই হোক হিসাব নিকাশ অনেক আছে, সেই দিকে না গিয়ে বলবো ইসলামী আন্দোলনের শক্তি ও ওবায়দুর রহমান মাহবুব সাহেবের ব্যক্তিগত জনপ্রিয়তা, সবমিলে বরিশালে একটা কিছু হবে।

জয় হোক ইসলামের, মুক্তি পাক মানবতা।

4071Shares