| |

বিশিষ্ট নাগরিকদের সম্মানে নারায়ণগঞ্জ জেলা ইসলামী আন্দোলনের ইফতার মাহফিল

প্রকাশিতঃ ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ | মে ২৫, ২০১৮

ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন বলেছেন, আজ দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব চরমভাবে লজ্জিত। নিগৃহিত-নিপীড়িত, শোষিত-বঞ্চিত, খুন গুম-ধর্ষণ, জুলুম নির্যাতনে শিকার দেশবাসী। স্বাধীনতা প্রাপ্ত বাংলাদেশকে বার বার বিশ্বের কাছে তামাশা করছে, ধোঁকা দিচ্ছে জনগণদের। এদেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে সকল মানুষের ন্যায্য ও প্রাপ্য অধিকার ফিরিয়ে দিতে রমজানের সুমহান শিক্ষা গ্রহণ করা সকলের জন্য বাধ্যতামূলক হয়ে পড়েছে। দেশের মানুষ এখন শান্তি চায়, প্রাপ্য অধিকার ফিরো পেতে চায়। যে কারণে আওয়ামীলীগ-বিএনপির জোট বাইরে বিকল্প ও তৃতীয় শক্তি খুঁজছে। সারাদেশে সচেতন ও বিবেকবান মানুষ তৃতীয় শক্তিতে ঝাঁকে ঝাঁকে ইসলামী আন্দোলনের পতাকাতলে সমবেত হচ্ছে।

গত বুধবার (২৩ মে) বাদ আসর শহরের চাষাঢ়ায় হোয়াইট হাউজে ইসলামী আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগরের উদ্যোগে বিশিষ্ট সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ ও বিশিষ্টজনদের সম্মানে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইসলামী আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সভাপতি মুফতি মাসুম বিল্লাহ’র সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান, নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান, আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সভাপতি হাজী নূরউদ্দিন আহম্মেদ, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের প্রার্থী মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, ৫ আসনের প্রার্থী আবুল কালাম প্রমুখ।

মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, আজকে ইসলামের জন্য যারা আন্দোলন করছে তাদেরকে দেখা যাচ্ছে আদালতপাড়ায় দৌড়ঝাঁপ করতে। তাদেরকে বর্তমান সরকার মামলা মোকদ্দমা দিয়ে হয়রানী করছে। এ সরকারের কাছে গণতন্ত্র ভুলুন্ঠিত। তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে। ওয়ান ইলেভেনের সময় যেখানে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ১৪টি মামলা হয়েছিল যার সবগুলোই প্রত্যাহার করা হয়েছে অথচ বিরোধী দলীয় নেতা কারো বিরুদ্ধেই মামলা প্রত্যাহার করা হয় নাই। বরং বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অসংখ্য মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মহানগর হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা ফেদাউসুর রহমান বলেন, আজকে বাম পন্থী দলগুলো কি পরিমাণ ভোট পাবে। একটি অংশীদার হওয়ার কারণে বাম পন্থী দলের অনেক নেতা আজকে সরকারের নানা সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে। অথচ আমরা ইসলামী দলগুলো কেন এক মঞ্চে আসতে পারছিনা। আজকে যদি আমরা এক পতাকাতলে আসতে পারি তাহলে আমার বিশ্বাস আওয়ামীলীগ বিএনপি মিলেও আমাদেরকে পরাজিত করতে পারবে না।

736Shares