| |

তাগুতি শক্তিগুলো ইসলাম ধ্বংস করতে উঠেপড়ে লেগেছে : অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ

প্রকাশিতঃ ৮:২২ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০৫, ২০১৭

আইএবি নিউজ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, বিশ্বব্যাপী ইসলাম ও মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে আল-কুফরু মিল্লাতুন ওয়াহিদাহ হয়ে মাঠে নেমেছে। মুসলমানদের নতুন করে মূর্তির সংস্কৃতিতে নিমজ্জিত করতে মৃণাল হক নামের কুলাঙ্গারদেরকে ব্যবহার করে মসজিদের নগরীকে মূর্তির নগরীতে পরিণত করতে আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছে। মূর্তির সংস্কৃতিতে রুখে দিতে হবে। মুসলমানদেরকে পৌত্তলিকতার দিকে নিয়ে যেতে চাইলে কাউকে ছেড়ে দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, ইসলামের মূর্তির কোন স্থান নেই। রাসূল সা. মূর্তি অপসারণ করতেই পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছেন। কাজেই মুসলমানের দেশে গ্রিক দেবীর মূর্তিসহ কোন মূর্তিই থাকতে পারবে না। অন্যথায় সর্বত্র আন্দোলন গড়ে উঠলে মূর্তিপ্রেমীরা এদেশে থাকতে পারবে না।

গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সাপ্তাহিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারি মহাসচিব আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রকৌশলী আশরাফুল আলম, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, অর্থ সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান শেখ, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী প্রমুখ।

অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, ইসলামকে বিজয়ী করার সংগ্রামে অবতীর্ণ হতে হবে। তাগুতি শক্তির সহযোগি হওয়া যাবে না। তিনি বলেন, ইসলাম আসছে বিজয়ের জন্য। মুসলমানরা ইসলাম বুঝতে পারেনি, ইসলামের পক্ষে নিরঙ্কুশ অবদান রাখতে পারেনি। বাতিলের সাথে আপোস করে ইসলামের উপকার করা যাবে না। তিনি সকলকে ইসলামের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করার আহ্বান জানান।

1756Shares