| |

চালের মূল্য বৃদ্ধি করে মানুষকে দারিদ্রতার দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে: ইসলামী কৃষক মজুর আন্দোলন

প্রকাশিতঃ ২:৪৮ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৫, ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টারঃ ইসলামী কৃষক-মজুর আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম কবির বলেছেন, কৃষকদের সুবিধা দেয়ার কথা বলে সরকারী দলের মধ্যস্বত্বভূগীদেরকে লাভবান করার জন্য সরকার অসময়ে কোনো কারন ছাড়া চালের মূল্য বৃদ্ধি করে নতুন করে ৫ লাখ ২০ হাজার মানুষকে দারিদ্রতার দিকে ঠেলে দিয়েছে। সরকার দেশকে দারিদ্র মুক্ত করার শ্লোগান দিয়ে জনগনের সাথে তামাশা করছে।

আজ (সোমবার) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে শহিদুল ইসলাম কবির বলেন, কৃষকদের প্রতি দরদ দেখিয়ে চালের মূল্য বৃদ্ধির যে কথা সরকারের অর্থমন্ত্রী বলছেন তা কোনোভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়। মধ্যস্বত্বভূগীরা কৃষকদের কাছ থেকে নাম মাত্র মূল্যে ধানসহ কৃষি পণ্য বিক্রয় করে চড়া দামে ভোক্তার কাছে বিক্রয় করছে, এর সাথে সরকারী দলের লোকেরা সরাসরি জড়িত রয়েছেন। বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থা থেকে কৃষকরা লোন নিয়ে উৎপাদিত কৃষি পন্য বিক্রয় করে সে লোন দিতে ব্যর্থ হয়ে ক্ষেত্র বিশেষে সম্পদ বিক্রয় করতে বাধ্য হচ্ছে। অনেক কৃষকরা এখনো খেয়ে না খেয়ে দিনাতিপাত করছে।

কৃষকদেরকে লাভবান করতে মূল্যবৃদ্ধি না করে ইসলামী কৃষক-মজুর আন্দোলনের পক্ষ থেকে সরকারের নিকট তিনি নিন্মোক্ত দাবী তুলে ধরেন, বাজেটে কৃষির বজেট বৃদ্ধি করতে হবে। সার, সেচ ও উন্নত জাতের বীজ বিনামূল্যে কৃষককে দিতে হবে। বিনা সুদে শহজ শর্তে কৃষককে লোন দিতে হবে। কৃষকদের উৎপাদিত সবজি সংরক্ষনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ব্যবস্থা করতে হবে। ধান, চালসহ কৃষিপন্য সরারসরি ভোক্তার কাছে বিক্রয় করে কৃষক যাতে লাভবান হতে পারে সে জন্য সরকারকে কৃষি সমবায় বাজার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE