| |

চরমোনাইতে আমি একজন মহাপুরুষকে দেখেছি

প্রকাশিতঃ ১২:২২ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৭, ২০১৮

এম শামসুদদোহা তালুকদারঃ চর‌মোনাইওয়ালারা দু’ভা‌গে বিভক্ত। একদ‌ল মরহুম পীর সা‌হেব রহ. কে দে‌খে‌ছেন, বাকী অন্যদল তাঁ‌কে সরাসরি দে‌খে‌ননি।

আ‌মি প্রথম দ‌লে। তাঁর সা‌ন্নিধ্য পাওয়াটা বরাব‌রের আকর্ষণীয় ও সৌভা‌গ্যের ছিল। আমার বাবা তাঁর একনিষ্ঠ মুরীদ। ক‌ঠিন যা‌কে ব‌লে, এখন তি‌নি বর্তমান শা‌য়েখ‌দের অনুসারী। তিনি অত্যন্ত প‌রি‌চিত মুখ চর‌মোনাই অঙ্গনের।

আমা‌দের পা‌রিবা‌রিক জীব‌নেও পীর সা‌হেব রহ. প্রধান উপ‌দেষ্টার ভূ‌মিকায় ছি‌লেন। আব্বা ছুট‌তেন তাঁর অ‌ভিভাব‌কের কা‌ছে, যে কোন বিষ‌য়ে জানা‌নো ও সুরাহার জন্য। এখন যেভা‌বে আ‌মি বর্তমান পীর সা‌হেবদ্বয়ের আ‌শেপা‌শে ঘু‌রে বেড়াই। নিজ জীবনাচরণে যা‌দের‌কে স‌রি‌য়ে রাখা  সম্ভব নয় মোটেই।

মরহুম পীর সা‌হেব হুজু‌রের জীবনের মূল্য কতটা ছিল‌! য‌দি না তি‌নি একজন দাঈ বা পীর হ‌তেন? তাঁর শেষ জীবনটা ছি‌লো এ দে‌শের একজন ব‌রেণ্য রাজনী‌তি‌কের। ই‌তিহাস স্বাক্ষ্য দিবে, তাঁর ইবাদ‌তের ও শহী‌দী মাকা‌মের ‌বিশুদ্ধ রাজনী‌তির কথা।

মুহতারাম হা‌ফেজ্জী হুজু‌র রহ. ও শা‌য়েখুল হাদীস আল্লামা আ‌জিজুল হ‌ক রহ. -এর সব‌চে‌য়ে যোগ্য শাগ‌রেদ ছি‌লেন তি‌নি। তাঁ‌দের পরামর্শ ও দোয়ার বরক‌তে তি‌নি প‌রিণত হন কামা‌লিয়া‌তের উচ্চ মাকা‌মে। রাজনী‌তি আর শঠতা পাশাপা‌শি চ‌রিত্র, কিন্তু এ আল্লাহর বান্দায় প‌রিশুদ্ধ রাজনী‌তি কা‌রে কয় তা দে‌খি‌য়ে দি‌য়ে‌ছেন। জাতীয় রাজনী‌তি‌তে তি‌নি শুদ্ধতা ফি‌রি‌য়ে এ‌নে‌ছেন। ইসলামী রাজনীতিতে তিনি বিশুদ্ধতার পুরোধা।

শরীয়‌তের সা‌থে যা মানানসই নয়, সেটা তি‌নি কখ‌নো ক‌রেন‌নি বা সে শিক্ষাটা তাঁর উত্তরসূরী‌দের দি‌য়ে যান‌নি। বর্তমা‌নে লো‌ভের দু‌নিয়ায় নি‌র্লোভ ভূ‌মিকা পালন চর‌মোনাই পীর‌দের দ্বারাই সম্ভব! একটু নমনীয়তা দেখা‌লে এম‌পি, মন্ত্রী আর মি‌লিয়নার হওয়া কোন ব্যাপার ছি‌লো না।

মরহুম পীর সা‌হেব হুজুর রঃ কখ‌নো নারী নেতৃ‌ত্বের পিছু নেন‌নি, সে শিক্ষাটা বজায় রে‌খে‌ছেন বর্তমা‌নের নেতৃত্ব। একটু ‌শিথীলতায় বৈ‌ষয়িক লাভালা‌ভের প্রচুর সু‌য়োগ আস‌তো, কিন্তুু সে পথ মাড়ান‌না বর্তমা‌ন নেতৃত্ব। কুরআন হাদীস ম‌তে,তিনি নারী নেতৃত্ব হারাম ব‌লে‌ছেন এবং সেটা আজীবন মে‌নে গে‌ছেন। বর্তমান উত্তরসূরীরাও সেটা মে‌নে রাজনী‌তি কর‌ছেন।

‌বিপ‌দের দি‌নে তিনি কতটা সবরকারী, তা একমাত্র মাওলাই জা‌নেন। বর্তমান মুহতারাম না‌য়ে‌বে আমী‌র  সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়েজুল করীমের দেড় দু’বছ‌রের ছোট ভাই সৈয়দ আ‌মিনুল করিম ‘আজাদ’ চর‌মোনাই‌তে শ্যা‌লো মে‌শি‌নের সা‌থে যখন দূর্ঘটনায় মারা গে‌লো, তখন মরহুম পীর সাহেব হুজু‌রে সফ‌রে। খবর পে‌য়ে তি‌নি চ‌লে আস‌লেন। সবার ম‌নে আতংক, হুজুর এ ভয়াবহ কষ্টটা সই‌তে পার‌বেন তো?

১৯৮৫ ইং স‌নে বিদায় বেলায় তাঁর বয়স হ‌য়ে‌ছিল মাত্র ১৩ বছর ৯ মাস। প্রিয় কি‌শোর পুত্র আজা‌দের নিথর দেহ‌টি দে‌খে শুধু এতটুকুই বল‌লেনঃ “মাওলা তোমার ফয়সালা! আমার আশা ছি‌লো, ছে‌লেটা একজন বড় আ‌লেম হ‌বে, এর আ‌গেই  তু‌মি তা‌কে নি‌য়ে গে‌লে!” সম্পূর্ণ স্বাভা‌বিক তি‌নি। যেভা‌বে সফ‌রে বাড়ী‌তে আ‌সেন এবা‌রেও ঠিক তেম‌নি।

মাত্র ৩ বছ‌রের ব্যবধা‌নে আবা‌রো ‌প্রিয়জন হারা‌নোর বেদনায় তি‌নি নীলকন্ঠ হ‌য়ে‌ছেন। আল্লাহর তরফ থে‌কে বারবার এ পরীক্ষাটা নেয়া হ‌য়ে‌ছে।

১৯৮৮ ইং সা‌লে  মাত্র  ২ বছর ১০ মাস বয়‌সি এক প্রত্যুষে “সৈয়দা আ‌রিফা” বাড়ীর অভ্যন্ত‌রের পুকু‌রের ঘাটলায় নে‌মে প‌ড়ে গি‌য়ে চির‌দি‌নের জন্য চ‌লে গে‌ছেন। সক‌লের আদ‌রের ছি‌লো এ ছোট্ট শাহজাদী। বড় বোন সৈয়দা আ‌ফিফা আহমাদ আপার ম‌তোই যার চেহারার গড়ন ও গাত্রবর্ণ। আর পীর সা‌হেব হুজুর রঃ এর সর্বক‌ণিষ্ঠ জান্নাত‌খানা।

সবাই এত শোকাতুর ও ব্য‌থিত, কিন্তু তি‌নি ভা‌বে‌লেশহীন। ব‌লেন‌নি একবারও, আ‌মি অসুস্থ, তোমরা জামা‌তে ‌গি‌য়ে দাঁড়াও। না, ঠিকই কাতার চি‌রে সাম‌নে গি‌য়ে ইমামতির জায়নামা‌জে দাঁ‌ড়ি‌য়ে ব‌লে‌ছেন “আল্লাহু আকবার।”

আমরা তো দে‌খে‌ছি, তি‌নি কিভা‌বে স্বীয় জনকে ‌নিজ হা‌তে জানাজা-দাফন ক‌রে ফজর বাদ মাহ‌ফি‌লের গুরুত্বপূর্ণ বয়ান কর‌তে স্টে‌জের চেয়া‌রে বস‌তে!

তাঁর মা‌ঝে চা‌রি‌ত্রিক দৃঢ়তা এতটাই বিদ্যমান ছি‌লো যে, কে কি বল‌লো আর না বল‌লো তা‌তে তাঁর কিছু যায় আ‌সে না। প্রথম প্রথম সবাই প্রশ্ন তুল‌তো, কত‌কে আবার হাস‌তো পীর সা‌হে‌ব হুজুর রাজনী‌তি ও ভো‌টের কথা কয় ব‌লে! একজন জি‌কি‌রে মশগুল থাকা মুর‌িদ বেটায় মানু‌ষের কা‌ছে গি‌য়ে পী‌রের নি‌র্দে‌শে ভোট চাই‌বে সেটা কিন্তু সে সম‌য়ে ক‌ঠিন একটা বিষয় ছি‌লো।

কিন্তু রাজনী‌তির  ময়দা‌নে একমাত্র এ কা‌ফেলা‌টিই দৃশ্যমাণ। লম্বা জুব্বা, সুন্নতি দাঁড়ি ও  টু‌পিওয়ালারা যে রাজনী‌তি কর‌তে পা‌রে সেটাই এখন বাস্তবতা। ইসলামী রাজনী‌তি বিমুখ এ জনপ‌দে তি‌নি বা‌তি‌লের বিরু‌দ্ধে হুঙ্কার দি‌য়ে‌ছেন রাজপ‌থে আর মাহ‌ফি‌লের ময়দা‌নে। রাজপ‌থে পু‌লি‌শের নির্দয় লা‌ঠির আঘা‌তে তি‌নি একা‌ধিকবার  আহত হ‌য়ে‌ছেন। তিনি তা‌দে‌রে অ‌ভিশাপ দেন‌নি,  “বু‌ঝের অভাব”ই ম‌নে কর‌তেন।

এক‌টি প্রজন্ম অল‌রে‌ডি হ‌য়ে গে‌ছি‌লো ,যারা আ‌লেম সমা‌জের প্র‌তি‌নি‌ধিত্বকারী দাবীদার সংগঠন, অথচ তারা মু‌খে দাঁ‌ড়ি , মাথায় টুপী ও সুন্ন‌তি লেবা‌সের আলামত রাখ‌বেনা! কিন্তু ইসলামী বিপ্লব ঘটা‌বেন তারা, অথচ ব্য‌ক্তি জীব‌নে ইসলা‌মের ছাপ থাক‌বেনা ! সেটাও দেখ‌তে হ‌চ্ছে।

এ স‌বের প্র‌তিবাদ হি‌সে‌বে মরহুম পীর সা‌হেব হুজুর চ্যা‌লেঞ্জ নি‌য়ে গ‌ড়ে তু‌লে‌ছেন ইসলামী শাসনতন্ত্র আ‌ন্দোলন, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আ‌ন্দোলন সহ সহ‌য়োগী আ‌রো অ‌নেক সংগঠন। যা এখন বাংলা‌দে‌শের ইসলামী রাজনী‌তির সিপাহসালার সংগঠণ হি‌সে‌বে মান‌ছেন অ‌নে‌কেই। মুতওয়া’রাও যে রাজনী‌তির নিয়ামক হ‌তে পা‌রেন, সেটা মরহুম পীর সা‌হেব হুজুর (রঃ) স্টাব‌লিস করে গে‌ছেন।

‌দ্বী‌নের দায়ী হি‌সে‌বে তি‌নি বছরময় সারা দেশটা ঘু‌রে বে‌ড়ি‌য়ে‌ছেন, ফ‌লে আজ চর‌মোনাইর এ বর্ণাঢ্য   অবস্থান। দে‌শের প্র‌তি‌টি জেলা, উপ‌জেলা এম‌ন কি প্র‌তি‌টি গ্রা‌মে মুজা‌হিদ ক‌মি‌টির মুজা‌হিদ র‌য়ে‌ছে। রয়েছে ইসলামী আন্দোলনের শাখা কমিটি।

যারা নফস ও শয়তা‌নের বিরু‌দ্ধে সর্বদা জিহা‌দে লিপ্ত ! যা‌দের বাড়ী‌তে টি‌ভি নেই, খাস পর্দা জারী আ‌ছে, মাগ‌রিব বাদ তাঁরা জি‌কি‌রের মজ‌লিস ব‌সেন। এ সবই  দাদাপীর  সৈয়দ ইসহাক (রঃ) এর উদ্ভা‌বিত, মরহুম পীর সা‌হেব হুজুর কর্তৃক ‌নি‌র্দে‌শিত অবশ্য পালনীয় তরীকার এক‌টি মহার্ঘ্য। আর যা বর্তমা‌নের জন্য নির্লংঘনীয় ‌সি‌লেবাস।

চর‌মোনাই এখন এক‌টি ইউ‌নিয়‌নের নামই নয়। এ‌টি এক‌টি মাওলা পা‌কের কবুলকৃত মাজমা’‌য়ের নাম। এর আমীরুল মুজা‌হিদীন ও না‌য়ে‌বে আমীরুল মুজা‌হিদীন এখন দে‌শের সদাব্যস্ত ‘দাঈ’ হি‌সে‌বে সারা দেশ সফর ক‌রে বেড়া‌চ্ছেন।

স্বীয় পিতার ন্যায় তাঁরা খানকা‌য়ে পীর, আর রাজপ‌থের বীর হি‌সে‌বে ‌নি‌জে‌দের‌কে নি‌য়ো‌জিত রাখ‌তে পে‌রে‌ছেন, আলহামদু‌লিল্লাহ্। আর এ ক্ষেত্রটা তারা পে‌য়ে‌ছেন স্বীয় পিতার জীবনব্যাপী অক্লান্ত প‌রিশ্র‌মের ‌বি‌নিম‌য়ে।

মরহুম পীর সা‌হেব হুজুর তাঁর সন্তান‌দের মা‌ঝে বিষয় সম্প‌ত্তির এমন চুল‌চেরা বন্টন ক‌রে গে‌ছেন যে, আজতক এ নি‌য়ে উত্তরা‌ধিকারী‌দের কেউই নাখোশ হন‌নি। সাত ভাই ও এক বো‌নের মা‌ঝে এমন সৌহার্দ্রতা আর কোন পীর ফ্যা‌মিলীর আ‌ছে কি না স‌ন্দেহ।

মিরাছ নি‌য়ে অশা‌ন্তি আর মোকাদ্দমায় জড়া‌নোর ন‌জির আ‌শেপা‌শের পীর‌দের মা‌ঝে বিদ্যমান। তি‌নি একজন দূরদ‌র্শী  ও প‌রিপূর্ণ ব্য‌ক্তিত্ব ছি‌লেন বিধায় আজ তার ওয়ারিশরা এক হাত এক প্রাণ। এটা  সম্ভব হ‌য়ে‌ছে তাঁর বহুমা‌ত্রিক স্পেশা‌লি‌টির জন্য।

আর হ্যাঁ, তাঁর এ স্পেশা‌লি‌টি ও কা‌রিশমার জন্যই চর‌মোনাই ত‌রিকা ও তাঁর প্র‌তি‌ষ্ঠিত ইসলামী আ‌ন্দোলন বাংলা‌দেশ ছ‌ড়ি‌য়ে‌ প‌ড়ে‌ছে  বাংলার সর্বত্র।বি‌দে‌শেও ব্যাপক সংখ্যক অনুসারী। এর চুড়ান্ত সুফল আস‌তে সময় লাগ‌বে ব‌টে, সে‌ দি‌নটা দেখার জন্য  আমার ম‌তো অ‌নে‌কেই স্ট্যান্ডবাই  আ‌ছি। কবুল ক‌রো মাওলা।

লেখকঃ প্রাবন্ধিক, ইসলামী গবেষক

3578Shares