| |

ইসলামের দন্ডবিধি সকল ধর্মের মানুষের নিরাপত্তা ও শান্তির জন্য: মুফতী ফয়জুল করীম

প্রকাশিতঃ ৩:০৪ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২৩, ২০১৭

আইএবি নিউজঃ মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর’১৭) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণ (নীলক্ষেত) সংলগ্নে বিবি মরিয়ম শাহী মসজিদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর উদ্যোগে “ছাত্র সমাজের নৈতিক অবক্ষয়ের কারণ ও উত্তরণের উপায়” শীর্ষক আলোচনা সভায় মূল্যবান বক্তব্য রাখেন ইসলামী অান্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম (শায়েখে কামেল চরমোনাই)।

তিনি সমবেত ছাত্রদের মুসলমানিত্বের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে আত্নশুদ্ধি অর্জনের আহবান জানান। তিনি বলেন, আপনারাই সামনে দেশ চালাবেন ৷ কাজেই আপনারা ঠিক হয়ে গেলে দেশ স্বাভাবিক পথে চলবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ছাত্রের কাছে ইসলামের শান্তির বাণী ছড়িয়ে দিতে সবাইকে একেকজন দাঈ’র ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে অনুরোধ করেন ৷ ছাত্রদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে সন্তোষ প্রকাশ করে নাস্তিকতার মোকাবেলায় ছাত্রসমাজকে অনুসন্ধিৎসু ও ইসলাম নিয়ে অধ্যয়নের উপর গুরুত্বারোপ করেন ৷

তিনি বলেন, ইসলামের দন্ডবিধি ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য নয়; বরং হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সবার সুরক্ষা, নিরাপত্তা ও শান্তির জন্য ৷ কাজেই শান্তি স্থাপনে ইসলামের তত্ত্বের বিকল্প নেই ৷ মানুষ ইসলামের দন্ডবিধি সম্পর্কে ভুল ধারণা পোষণ করে। সবার মাঝে ইসলামের সঠিক বাণী পৌঁছে দিতে হবে।

আতায়ে রাব্বির সভাপতিত্বে ইজতেমায় বক্তব্য রাখেন ঢাবি অধ্যাপক ড. মুহাম্মাদ আব্দুর রশীদ, অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি জি.এম. রুহুল আমীন, ঢাবির সাবেক সভাপতি মাহবুব আলম, কেন্দ্রীয় জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল হাছিবুল ইসলাম, তথ্য,গবেষণা ও প্রচার সম্পাদক মুহাম্মাদ ইলিয়াস হাসান, প্রকাশনা সম্পাদক এইচ এম কাওছার আহমাদ, ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহ, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক মুহাম্মাদ আল আমিন প্রমুখ।

 

0Shares