| |

আমরা ক্ষমতায় গেলে দুই বছরেই দেশের চিত্র পাল্টে যাবে : মুফতী ফয়জুল করীম

প্রকাশিতঃ ৭:২৭ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

চট্টগ্রাম থেকে শফকত চাটগামী: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতীখনি  সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম (শায়খে চরমোনাই) বলেছেন, বর্তমানে রাষ্ট্রের প্রতি ১০০ টাকা থেকে ৭০ টাকা চুরি হয়। যারাই যখন ক্ষমতায় এসেছে তারাই দেশের সম্পদ লুটপাট ও চুরি করেছে। দেশটাকে ৫ বার চুরির দিক দিয়ে প্রথম স্থানে নিয়ে গেছে। এর ফলে সারা বিশ্বে আজ আমরা চোরের জাতি হিসেবে পরিচিত হতে শুরু করেছি। এভাবে দেশ চলতে পারেনা। এই লুটপাট ও চুরির খেলা বন্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, আমাদের একটি বারের জন্য ক্ষমতা দিন। আমরা ৭০ ভাগ রাষ্ট্রীয় টাকা চুরি বন্ধ করার পাশাপাশি শতভাগ উন্নয়ন নিশ্চিত করব। আমাদের হাত দিয়ে দুর্নীতি, চুরি কিংবা লুটপাট হবে না ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, বর্তমান অর্থনীতি গরীব মারার অর্থনীতি। এই অর্থনীতি গরীবকে আরো গরীব, ধনীকে আরো ধনি বানায়। আজ গরিবের জন্য ব্যাংক লোন নেই। যার আছে তাকে আরো দেয়া হচ্ছে। যার পেটে ভাত আছে তাকেই খাবার দিচ্ছে এই অর্থ ব্যবস্থা। আমরা গরীবের অধিকার ফিরিয়ে দিতে চাই।

শায়খে চরমোনাই আরো বলেন, আসলে না বুঝে আমরা ইসলাম বাদ দিয়ে বিভিন্ন মতবাদে জড়িয়ে যাচ্ছি। যে কয়জন মানুষ আল্লাহকে সেজদা দেই তারা যদি ইসলাম চায় তাহলে এই মুহুর্তে এদেশ সোনার দেশে পরিণত হওয়া সম্ভব।

তিনি আরো বলেন, ভোট সহজ বিষয় নয়। ভোট মানে সাক্ষী দেয়া। ভোট মানে পক্ষে থাকার সাপোর্ট স্বীকার করা। ভোট মানে নেতৃত্বের অথরিটি দেয়া। আইন পাশের ক্ষমতা দেয়া। আপনার একটি ভোটের উপর অনেক কিছুই নির্ভর করে। তাই যাচাই বাচাই করে দেখে শুনে ভোট দেয়ার আহবান জানান তিনি।

শায়খে চরমোনাই বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ জনগণকে সাথে নিয়ে গণসচেতনতা ও গণ বিপ্লবের মাধ্যমে আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীন বাস্তবায়ন করতে চায়। তিনি আগামী নির্বাচনে “নো আওয়ামীলীগ, নো বিএনপি, ইসলাম ইজদ্যা বেষ্ট” এই স্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থীদের হাতপাখা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহবান জানান।

গত ৫ ও ৬ ফেব্রুয়ারী, সোমবার ও মঙ্গলবার চট্টগ্রাম দক্ষিণ ও কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন প্রোগ্রামে শায়খে চরমোনাই উপরোক্ত কথা বলেন।

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE