| |

আগামী সংসদ নির্বাচনে ৩শ’ আসনে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী চূড়ান্ত

প্রকাশিতঃ ১২:৫৩ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৬, ২০১৮

পাইকগাছায় উলামা ও সুধী সম্মেলনে পীর সাহেব চরমোনাই

ইএবি নিউজঃ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর আলহাজ্ব মাওলানা মুফতী সায়্যিদ মুহাঃ রেজাউল করীম বলেছেন, দেশে ইসলামী আন্দোলনের বিকল্প কোন ইসলামী দল নেই। তিনি বলেন, ইতোপূর্বে বিএনপি’র সাথে অনেক ইসলামী দলকে রাষ্ট্র পরিচালনা করতে দেখেছি। কিন্তু তারা ক্ষমতায় গিয়ে ইসলামের কথা ভুলে গিয়ে মদকে জায়েয করেছিল। এতে প্রমাণিত হয় দেশে ইসলামী আন্দোলনই একমাত্র ইসলামী দল। ইসলামী নীতি-আদর্শ অনুসরণ করা ছাড়া কোন শান্তি আসতে পারে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, সারা বিশে^র মুসলমান আজ নানাভাবে নির্যাতিত। মিয়ানমারের বৌদ্ধ সরকার মায়ের কোলের মাছুম বাচ্চাকে হত্যা করে মানবতাকে বিসর্জন দিয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যা অজুহাতে ইরাকের মত একটি রাষ্ট্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে। সারা বিশে^র মুসলমানের উপর নির্যাতন দেখে মনে হয় বিশে^ নির্যাতিত জাতির নাম মুসলমান। অথচ এরা সন্ত্রাসী হয় না। এদের কাছে সন্ত্রাসী হয় মুসলমান। 

তিনি বলেন, মুসলমানসহ অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করায় ইসলামী আন্দোলনের মূল লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য। আজ দেশে ইসলামী আদর্শ নেই বলেই স্বাধীনতার ৪৭ বছরে বাংলাদেশ চোরের দিক থেকে ৫ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তিনি শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ-এর সাম্প্রতিক সময়ের একটি মন্তব্য প্রসঙ্গে বলেন, মন্ত্রী নিজেই ঘুষের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন। এ জন্য তিনি ঘুষকে সহনীয় মাত্রায় খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। অথচ, ইসলামে সুদ, ঘুষ ও দুর্নীতির কোন স্থান নাই। একমাত্র ইসলামী রাষ্ট্র কায়েম করার মাধ্যমে দেশ থেকে ঘুষ, দুর্নীতি দূর করা সম্ভব উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ লক্ষে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রায় ৩শ’ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। খুলনা-৬ আসনের মনোনীত প্রার্থীকে পরিচয় করে দিয়ে তিনি আগামী নির্বাচনে শান্তির প্রতীক পাখা প্রতীকে ভোট দেয়ার জন্য সব ধর্মের মানুষের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে পাইকগাছা পৌরসভা মাঠে ইসলামী আন্দোলন পাইকগাছা ও কয়রা উপজেলা শাখা আয়োজিত উলামা ও সুধী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন, জেলা সভাপতি ও খুলনা-৬ আসনের মনোনীত প্রার্থী মাওঃ গাজী নূর আহমাদ-এর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা ইসলামী আন্দোলন সভাপতি আলহাজ্ব মাওঃ আব্দুল্লাহ ইমরান, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওঃ আবু সাঈদ, সেক্রেটারী শেখ হাসান ওবায়দুল করীম, জেলা নেতা ডাঃ মোঃ ইসহাক আলী, ইঞ্জিনিয়ার এজাজ মানসুর হোসেন, মুফতী মাহবুবুর রহমান, মাওঃ আসাদুুল্লাহ হামিদী, মোঃ আব্দুুল্লাহ আল-মামুন, মুফতী বুরহান উদ্দিন, মাওঃ মুজিবুর রহমান, এম এ হাসিব গোলদার, সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান, উপজেলা শাখার সভাপতি কামরুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক ফারুক খলিফা, কয়রার সভাপতি মাওঃ আশরাফ আলী, মাওঃ উয়াইস আহমেদ, মাওঃ শফিকুল ইসলাম ও সাংবাদিক গাজী সালাম।

সম্মেলন শেষে চরমোনাই পীর পাইকগাছা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত ২৩তম বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।


সময়ের খবর

 

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE